,

বেতাগীতে কর্মহীন মানুষের বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিচ্ছেন চেয়ারম্যান-ইউএনও

নিজস্ব প্রতিবেদক ♦
রাত হলেই গাড়ীতে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে বেরিয়ে পড়েন উপজেলা চেয়ারম্যান মো: মাকসুদুর রহমান ফোরকান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: রাজীব আহসান। তাদের সাথে থাকেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো: আমিরুল ইসলাম পিন্টু। উদ্দেশ্য কর্মহীন মানুষের বাড়িতে এসব খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেট পৌছে দেওয়া। ফলে কনোনায় প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্থ্যরা পাচ্ছন প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে প্রাপ্ত খাদ্য সহায়তা। করোনা প্রতিরোধে লকডাউন হওয়ার পর প্রায় প্রতিদিনই এভাবে তারা কর্মহীনদের খাদ্য সামগ্রী বাড়িতে পৌছে দিচ্ছেন।
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ছাড়া বেতাগীর সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গণ পরিরহন বন্ধ রয়েছে। এতে বন্ধ হয়ে গেছে নিম্ন আয়ের দিনমজুর ও অসহায় মানুষদের উপার্জন। ফলে কর্মহীন হয়ে পড়েছে কয়েক হাজার পরিবার। প্রতি পরিবারকে চাল, আলু, ডাল, সয়াবিন তেল ও হাত ধোয়ার সাবানসহ একটি পৌরসভা ও ৭টি ইউনিয়নে এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে। কর্মহীন মানুষের দ্বারে দ্বারে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দেওয়ায় কর্মহীন মানুষজন আস্থা ফিরে পেয়েছে।
বেতাগী নাগরিক ফোরাম-বিএনএফ’র উদ্যোক্তা লায়ন মো: শামীম সিকদার বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউএনও সাহেব করোনা মোকাবিলায় রাতদিন কাজ করে যাচ্ছেন। তাদের এ উদ্যোগের ফলে সঠিক ও যোগ্য কর্মহীন লোকজন বাড়িতে বসে খাদ্য সামগ্রী পাচ্ছেন। এজন্য তাদেরকে বিএনএফ’র পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।
উপজেলা চেয়ারম্যান মো: মাকসুদুর রহমান ফোরকান বলেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে এবং সবাইকে করোনা মুক্ত রাখতে বাড়ি বাড়ি গিয়ে অসহায় মানুষের ঘরে ঘরে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করছি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: রাজীব আহসান বলেন, করোনা ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকতে দিনমজুর অসহায়দের নিজ নিজ বাড়িতে থাকা নিশ্চিত করতে ত্রাণ সামগ্রী দিচ্ছে সরকার। যথাযথভাবে ওইসব খাদ্যসামগ্রী বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। একই সঙ্গে সচেতন করা হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।

Print Friendly

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর