,

বেতাগীতে বিএনপি’র দু’পক্ষের কর্মীসভা কেন্দ্র করে ১৪৪ ধারা জারি

নিজস্ব প্রতিবেদক ♦
বরগুনার বেতাগীতে বিএনপি দু’পক্ষের কর্মী সভাকে কেন্দ্র করে সভা স্থলে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। আগামীকাল সোমবার কেন্দ্রীয় বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন’র বেতাগীতে সাংগঠনিক সফর উপলক্ষে উপজেলা বিএনপি মোকামিয়া আলিয়া মাদরাসা মাঠে এবং পৌর বিএনপি শহরের দলীয় কার্যালয়ে কর্মী সভা আহবান করেছিল। একই দিনে দু’পক্ষের কর্মী সভা আহবান করার ফলে আইন শৃংখলার অবনতির আশঙ্কায় উভয় স্থানে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। উপজেলো উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসেন বাচ্চু তার উভয় অর্পিত ক্ষমতাবলে ১৪৪ ধারা জারি করে উভয় স্থানে সব ধরনের সভা সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষনা করেন। আগামী কাল সোমবার সকাল ৬ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত এই আইন বলবৎ থাকবে।

বেতাগী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অতিরিক্ত দায়িত্ব)ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: জাকির হোসেন বাচ্চু জানান, বিএনপির দুই গ্রুপের মধ্যে ধাঙ্গা-হাঙ্গামার আশঙ্কায় ১৪৪ ধারা জারী করা হয়েছে। বেতাগী থানার অফিসার ইনচার্জ মামুন-আর-রশীদ জানান, কেউ আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটালে তাদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ জাতীযতাবাদী দল-বিএনপি’র কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, বামনা ও পাথরঘাটায় আমার কর্মী সমাবেশে গণজোয়ার দেখে সরকার ভয় পেয়ে বেতাগীর কর্মীসমাবেশ বন্ধ করেছে আমারা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। পৌর বিএনপি’র নেতা মো. হুমায়ূন কবির মল্লিক বলেন, সরকার বিএনপির জনপ্রিয়তায় ভয় পায় তাই আমাদের কর্মী সভা করতে দিচ্ছে না। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তে আমরা দুঃখ পেয়েছি। আইনের প্রতি আস্থা রেখে আমাদের সকল কর্মসুচি বাতিল করেছি। উপজেলা বিএনপি’র নেতা মো. জাকির হোসাইন বলেন, ১৪৪ ধারা জারি করায় আমরা হতাশ হয়েছি। আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আগামীকালের সকল দলীয় কার্যক্রম বাতিল করা হয়েছে।

Print Friendly

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর