,

মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে ময়ূরজানের প্রতিবন্ধী পরিবার

মো: শামীম সিকদার  ♦  ভিডিও লিংক 
বরগুনার বেতাগীতে একই পরিবারের ৬ সদস্যের মধ্যে পুরুষ ৩ জনই প্রতিবন্ধি বাকী ৩জন বিধবা। এদের ভাতা পায় না কেহ এমনই অভিযোগ ভুক্তভোগী শতোর্ধী গৃহকর্তী ময়ূরজানের।
সরেজমিনে জানা গেছে উপজেলার বুড়ামজুমদার ইউনিয়নের কাউনিয়া গ্রামের একই পরিবারের ৬ সদস্যের ৩জনই শারীরিক প্রতিবন্ধী। ৩ জন মহিলার সবাই বিধবা এবং ৩জন পুরুষ সকলেই শারিরীক ও বাক প্রতিবন্ধী। একমাত্র সক্ষম ভিক্ষুক নুরজাহানের ভিক্ষার টাকায় চলে তাদের সংসার। এতে মানবেতর জীবন যাপন করছেন পরিবারটি। কোন কোন দিন চাহিদামত চাল ভিক্ষা করে না আনতে পারলে অভুক্ত বা অর্ধাহারে দিনাপাত করতে হয়।

রিজিয়া(৬৫), নুরজাহান(৫০), রত্তন(৬০), সুমন(৩০) ও সোহাগ(২৫) নামে এরা সবাই ময়ুর জানের পরিবারের সদস্য। এদের দেখার কেহ নেই। এদের নেই জাতীয় পরিচয় পত্র নেই কোন জন্ম সনদ এরা নিজ দেশে নাগরিকত্ববিহীন। ষাটোর্ধ ৩জন পায় না বয়স্ক ভাতা ৩ জনই নারী বিধবা তারা পায় না বিধবা ভাতা। এমনকি ৩জনই শারীরিক ও বাক প্রতিবন্ধি তারা পায় না প্রতিবন্ধি ভাতা। ময়ুরজানের মেয়ে ভিক্ষুক নুরজাহান সাংবাদিকদের জানান তার ভিক্ষার টাকা দিয়ে আর সংসারের চাপ সামলাতে পারেন নাা। তার পরিবারের সদস্যদের যে কোন ভাতার আওতায় এনে দেয়ার দাবি তার। নীজ ঘরে এ প্রতিনিধির সাথে আলাপকালে ময়ুর জান বলেন ’বছরের পর বছর খালি নামই ন্যায় এ্যহনপর্যন্ত মোগো কেইউরেই ভাতার নাম দেয় না। মোর মাইয়ার এ্যল্লা চাইয়া চিন্তা মোগো ব্যয়াককেরে খাওয়াইতে পারে না’। সরকারের এত প্রকার ভাতার মধ্যে কেন এই পরিবারের সদস্যরা কোন প্রকার ভাতা পায় না এমন প্রশ্নের জবাবে ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ গোলাম রব শুক্কুর মীর বলেন এদের কারো জন্ম সনদ বা জাতীয় পরিচয় পত্র না থাকায় কোন ভাতায় নাম দিতে পারি নাই তবে ভিজিডির নাম নুরজাহানের নামে দিয়েছিলাম তাও গেল বছরের ডিসেম্বরে মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে। কেন তাদের পরিচয় পত্র হল না এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন পুর্বের জনপ্রতিনিধিরা কোন খোজ নেয় নি তাই। উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা শাহিনুর রহমান বলেন প্রাথমিক তালিকা করার দায়িত্ব জনপ্রতিনিধির আমার কাছে আসলে আমি প্রতিবন্ধির ভাতার কার্ড করে দিব। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: রাজীব আহসান বলেন পরিবারের কেহই ভাতা পান না এটা সঠিক নয়। এই অর্থ বছরেই তাদের ভাতার আওতায় আনা হবে।

Print Friendly

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর