,

অভিযান-১০ ট্র্যাজেডি II গণজানাজা শেষে বরগুনার গণকবরে ২৮ জনের দাফন

মো. শামীম সিকদার ♦
ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে বরগুনাগামী এমভি অভিযান-১০ লঞ্চে আগুনের ঘটনায় নিহতদের মধ্যে ২৮ জনের গণজানাজা শেষে বরগুনায় পোটকাখালী সরকারি গণকবরস্থানে দাফন কার্য শেষ হয়েছে। শনিবার সকালে বরগুনা সার্কিট হাউজ ঈদগা ময়দানে ৩০ জনের সম্মিলিত জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।
বরগুনা জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে জানাজায় স্থানীয় সংসদ সদস্য এডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু, জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. দেলোয়ার হোসেন ও বরগুনা পৌরসভার মেয়র কামরুল আহমান মহারাজসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেয়।
বরগুনার জেলা প্রসাসক হাবিবুর রহমান জানান, ঝালকাঠি জেনারেল হাসপাতাল থেকে মোট ৩৭ জনের মরদেহ বুঝে নেয় বরগুনা জেলা প্রশাসন। এদের মধ্যে আগেই পাঁচজনের মরদেহ শনাক্ত করে স্বজনদের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়। বাকি ৩২ জনের মধ্যে শনিবার সকালে স্বজনরা আরও চারজনের মৃতদেহ শনাক্ত করেছে। এই চারজনের মধ্যে দুইজনের মরদেহ স্বজনদের বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। তিনি জানান, পরিচয় শনাক্ত হওয়া আরও দু’জনসহ ৩০ জনের জানাজা বরগুনা সার্কিট হাউজ ঈদগা ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
জেলা প্রশাসক আরও জানান, জানাজার পর পরিচয় শনাক্ত হওয়া দু’জনের মরদেহ স্বজনদের বুঝিয়ে দিয়ে বাকি ২৮ জনের মরদেহ দাফনের প্রস্তুতি চলছে। তবে প্রতিটি মরদেহের ময়নাতদন্ত করে ডিএনএ পরীক্ষার জন্য নমুনা রাখা হয়েছে। পরবর্তী সময়ে তাদের কোনো স্বজন যদি ডিএনএ নমুনা নিয়ে আসেন তবে কবর শনাক্ত করে দেওয়া হবে।

Print Friendly

     এই ক্যাটাগরীর আরো খবর